২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং

নগরে আগুন লাগলে, দেবালয় বাদ যায়না

News

প্রধানমন্ত্রী ধর্ষক ও যৌননিপীড়ন কারীদের বিরুদ্ধে কঠোরতা দেখানোর নির্দেশনা দেওয়ার পরও সে নির্দেশ পালনে এত ব্যার্থতা কেন! কিছুদিন সুবর্নচরের ধর্ষন মামলার প্রধান আসামী রুহুল আমিন জামিন পায় যদিও সোস্যাল মিডিয়ার চাপে সে জামিন স্হগিত হয়। এখন প্রশ্ন বিদ্যমান আইন-কানুন কি জনগন ও রাষ্ট্রের চাহিদা পুরনে ব্যার্থ, নাকি সরকার ব্যার্থ নাকি প্রশাসন। সরকার চলে কিছু আইনি প্রক্রিয়াদির ভিতর। তাহলে এক্ষেত্রে নিশ্চয় বিদ্যমান আইন ব্যার্থ অথবা অচল। সরকারের উচিৎ অতিদ্রুত আইন সংশোধন করা বা নতুন আইন করা। জনগন যদি আইন নিজহাতে তুলে নেয় তাহলে সামাজিক অরাজকতা সৃষ্টি হবে। গতকাল নোয়াখালী সোনাইমূড়ী বাঁরইগাঁ গ্রামে আর একটি গনধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে।অপরদিকে ময়মনসিংহে এক ধর্ষনকারীর অঙ্গ কর্তনের ঘটনা ঘটেছে। কয়েকদিন আগে ভারতের বিহারে ধর্ষিতা কর্তৃক ধর্ষনকারীকে আগুনে পুড়িয়ে মারার আর একটি ঘটনা ঘটেছে। অপরাধীদের যদিও কোন দলীয় পরিচয় থাকেনা তবুও আমাদের দেশে অনেক সময় ক্ষমতাসীন লোকজনের নীরব প্রচয়য়ে কিছুটা আস্কারা পায়। এই সামাজিক ব্যাধি থেকে মুক্তি পেতে সরকার ও জনগনের যৌথ সমন্বয়ে “সামাজিক প্রতিরোধ আন্দোলন” গড়ে তুলতে হবে। শহরে আগুন লাগলে, দেবালয় বাদ যায় না এই কথাটি আমাদের সবাইর মনে রাখা উচিৎ। বিনীত অনুরোধে, বিদিশা

     এ জাতীয় আরো সংবাদ

ফেজবুকে আমরা